করোনাভাইরাস এর সঙ্গে লড়তে একে অপরের পাশে দাঁড়িয়ে নিজের একশ শতাংশ দিয়ে সাহায্য করছেন সবাই। ভোটে জেতার পর থেকে বিধায়করা কাজে লেগে পড়েছেন।  বিধায়কের পদ পেয়ে  সাধারণ মানুষদের পাশে  দাঁড়িয়েছেন সোহম চক্রবর্তী। এর আগেও তিনি দুঃস্থ মানুষের পাশে দাঁড়িয়ছিলেন। করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতিতে সোহম ও বরাহনগরের হাসি খুশি ক্লাবের যৌথ উদ্যোগে করোনা রোগীদের পাশে যথাযথ ভাবে থাকার চেষ্টা করছে।

বরাহনগর থেকে শুরু করে দমদম,শ্যামবাজার,কাশিপুর,বেলগাছিয়া,সোদপুর,ব্যারাকপুরে পরিষেবা দেওয়া 
হচ্ছে। শুধু যে খাদ্যসামগ্রী ওটা নয় হাসপাতালে রোগীর পরিবারদের জন্যও তৈরি খাবার হাতে হাতে তুলে
দেওয়া হচ্ছে। কমন রুম ক্যাফের সহযোগীতার মাধ্যমে মানুষের হাতেহাতে খাবার তুলে দিচ্ছে টিম সোহম।

হাসপাতালে বেড না পেলেও নিজেদের সাধ্য মতো বেড জোগাড় করে দেওয়ার চেষ্টা করছেন।করোনাতে
আক্রান্ত রোগীদের হসপিটালে অ্যাডমিট করা থেকে শুরু করে অ্যাম্বুলেন্স এর ব্যবস্থা করা, জীবনের ঝুঁকি
নিয়ে সমস্ত কাজ সামলাচ্ছেন টিম সোহমের সম্পাদক সুমন কর।

করোনা আক্রান্ত রোগীর বাড়িবাড়ি গিয়ে স্যানিটাইজ করিয়ে দিচ্ছেন তাঁরা।বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া
হচ্ছে ওষুধও। যে সমস্ত রোগীর পরিবারের সদস্য হাসপাতালের বাইরে অপেক্ষা করছেন তাদের জন্য
পার্সেল করে খাবার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।এই উদ্যোগ সফল করার জন্য হাত মিলিয়েছেন সোহম ফ্যান 
ক্লাবের সদস্যরাও। প্রথম দিন প্রায় পঞ্চাশ জনের খাবার পৌঁছে দিলেন তাঁরা। প্রতি মুহূর্ত টিমের সঙ্গে 
যোগাযোগ রেখে তাঁদের অনুপ্রেরণা দিচ্ছেন সোহম চক্রবর্তী। আগামী দিনে এই পরিষেবা আরও বৃহত্তর 
করার পরিকল্পনা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

ঘূর্ণিঝড় ইয়াস- ওড়িশা ঘূর্ণিঝড়ের জন্য প্রস্তুত, ১৪ টি জেলা উচ্চ সতর্কতায়

ওড়িশা ঘূর্ণিঝড় ইয়াস এর জন্য প্রস্তুত, ১৪ টি জেলা উচ্চ সতর্কতা। বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড়ের …